“ক্ষুধার্ত থেকো, বোকা থেকো” – স্টিভ জবসের অসাধারণ সেই বক্তৃতার ভিডিও ও কথাগুলোর বঙ্গানুবাদ…

Standard

সম্প্রতি স্টিভ জবস আমাদের ছেড়ে পাড়ি জমিয়েছেন পরপারে… তার পদচারণায় কিছুদিন আগেও মুখরিত ছিল প্রযুক্তি-বিশ্ব, আজ তার অনুপস্থিতিতে সমগ্র বিশ্ব শোকাহত। তিনি স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০০৫ সালে সমাবর্তন বক্তা হিসেবে আমন্ত্রণ পেয়ে অসাধারণ এক বক্তৃতা উপহার দিয়েছিলেন… বক্তৃতার ভিডিও টি দেখতে চাইলে নিচের ভিডিওটি প্লে করে নিতে পারেন। ভিডিওর পরপরই বক্তৃতার বঙ্গানুবাদ বাংলাতে দেয়া হলো। [বঙ্গানুবাদ করেছেন “সিমু নাসের”, বঙ্গানুবাদটি প্রথম আলোর সৌজন্যে দেয়া হলো]

প্রথমেই একটা সত্য কথা বলে নিই। আমি কখনোই বিশ্ববিদ্যালয় পাস করিনি। তাই সমাবর্তন জিনিসটাতেও আমার কখনো কোনো দিন উপস্থিত হওয়ার প্রয়োজন পড়েনি। এর চেয়ে বড় সত্য কথা হলো, আজকেই কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠান সবচেয়ে কাছে থেকে দেখছি আমি। তাই বিশ্বের অন্যতম সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের এই সমাবর্তন অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে পেরে নিজেকে অত্যন্ত সম্মানিত বোধ করছি। কোনো কথার ফুলঝুরি নয় আজ, স্রেফ তিনটা গল্প বলব আমি তোমাদের। এর বাইরে কিছু নয়। Continue reading

Advertisements

কম্পিউটার ভাইরাস কিভাবে কাজ করে?

Standard

আচ্ছা, কখনো কি ভেবে দেখেছেন কম্পিউটার ভাইরাস কিভাবে কাজ করে? ভেবে থাকুন বা নাই থাকুন, যদি না জেনে থাকেন তবে নিচের ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন… হাওস্টাফওয়ার্ক্স ডট কম এর তৈরী মাত্র ১.০৬ সেকেন্ডের এই ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন, মোটামুটি ধারণা হয়ে যাবে ভাইরাসের কার্যক্রম সম্পর্কে…

 

অজানা গন্তব্য…পথ…পথচারী এবং আমি…

Standard

অন্তহীন এক অজানা গন্তব্যের দিকে পথ হেঁটে চলেছি সেই ছোট্টবেলা থেকে… হাঁটতে হাঁটতে কতবার যে হোঁচট খেয়েছি তা গুণে রাখার মত সামর্থ্য আমার ছিল না। পথিমধ্যে হয়তো অনেক জায়গাতেই খানিকটা বিশ্রাম নিয়েছি, এরপর পুরো উদ্যমে আমার হেঁটেছি। যখনি প্রয়োজন মনে করেছি খানিকটা জিরিয়ে নিয়েছি। পথ চলতে চলতে অনেক পথচারীরই দেখা পেয়েছি, তাদের কেউ হয়তো আমাকে আপন করেছে, কেউ হয়তো দূরে ঠেলে দিয়েছে। কেউ হয়তো কোনটিই করার সময় পায়নি, স্বেচ্ছায় তাদেরকে আপন করে নিয়েছি। হয়তো নিজের তাগিদে, হয়তো তাদের তাগিদে…

অজানা গন্তব্য

সকলে সমান তালে পথ চলতে পারে না, ঠিক তেমনি ভাবে আমিও হয়তো অনেক পথিকের সাথে সমান তাল বজায় রাখতে পারিনি; তাই হয়তো তারা আমাকে অপ্রয়োজনীয় মনে করে পিছে ফেলেই ছুটেছে অন্তহীন অজানায়। একবারও পিছে ফিরে তাকায়নি, পাছে লজ্জায় পড়ে যায় এই ভেবে। আমি কিছু বলেনি, শুধু তাদের চলে যাওয়া ফ্যাল ফ্যাল করে চেয়ে দেখেছি। হয়তো অস্বাভাবিক এই চাহনির মাঝে কখনো চোখের কোণে জমাট বেঁধেছিল অশ্রুকণা, বেশ খানিকটা কণা এক হয়ে যখন গড়িয়ে পড়ার আকুল চেষ্টা চালাচ্ছিল, এই আমি তখন সেগুলোকে ধরে রাখার ব্যর্থ প্রচেষ্টা চালাচ্ছিলাম। Continue reading

গতকাল হয়ে গেলো WebSEOGuide.net এর ওপেনিং সিরিমনি ও মিট-আপ…

Standard

গতকাল ধানমন্ডিতে অবস্থিত অর্কিড প্লাজায় এডুমেকার এর অফিসে হয়ে গেলো WebSEOGuide.net* এর ওপেনিং সিরিমনি ও মিট-আপ। সর্বোমোট ২৫ জন সেখানে উপস্থিত ছিলেন। বিকেল চারটার সময় শুরু হওয়ার কথা থাকলেও বিশেষ কারণে নির্বাচিত সময়ের কিছুটা সময় পর শুরু হয় অনুষ্ঠান।

ওয়েব এসইও গাইড Continue reading

আপনার ছবি কি ইন্টারনেটে স্বাভাবিক থেকে ভিন্ন দেখায়? জেনে নিন এর পিছনের কারণ ও সমাধানের উপায়…

Standard

আপনার ছবি কি ইন্টারনেটে স্বাভাবিক থেকে ভিন্ন দেখায়? জেনে নিন এর পিছনের কারণ ও সমাধানের উপায়...ধরুন, নিজের মনের মাধুরী মিশিয়ে কোন ছবি ইডিট করেছেন, দেখতেও সেরকম লাগছে ছবিটা 😉 । কিন্তু যখন ছবিটা নেটে আপলোড করলেন তখন দেখলেন আপনার ইডিট করা ছবিটি থেকে আপলোড করা ছবিটি দেখতে অনেকাংশেই ভিন্ন 👿 । তাছাড়া আগের মত রঙও তেমন উজ্জ্বল না 😥 । মোট কথা ছবিটা দেখতে এখন আর তেমন সুন্দর লাগছে না… নিশ্চই এমন মূহূর্তে মন খারাপ হয়ে যাওয়ার কথা 😕 । এই পোস্টে আমি ইন্টারনেটে আপলোডকৃত ছবিটির কিছুটা ভিন্নতর দেখানোর কারণ ও সমাধানের উপায় জানাবো।

ব্রাউজারগুলো সাধারণত যে কালার প্রোফাইল ব্যবহার করে সেটা হলো “sRGB“। ব্রাউজারে কোন ইমেজ লোড করার সময় ব্রাউজার ইমেজটিকে ফোর্স করে sRGB কালার প্রোফাইল ব্যবহার করার জন্যে। আর এই ফোর্সের কারণেই সুন্দর রংচঙা ছবি অনেক সময় উজ্জলহীন, রঙ্গহীন ও আকর্ষণহীন ছবিতে পরিণত হয়। শুনতে বোধহয় ব্যপারটা অনেক সাধারণ মনে হচ্ছে তাই না? তো চলুন কালার প্রোফাইল সম্বন্ধে বিস্তারিত জানা যাক… Continue reading

এ সপ্তাহের প্রিয় গান…[অ্যাম্বিশন – নচিকেতা]

Standard

নচিকেতা আমার অন্যতম পছন্দের শিল্পী। এ সপ্তাহের প্রিয় নির্বাচিত করলাম নচিকেতার অ্যাম্বিশন গানটাকে…

ভিডিওঃ

নচিকেতার অ্যাম্বিশন গানটার লিরিক্সঃ

কেউ হতে চায় ডাক্তার, কেউ বা ইঞ্জিনিয়ার,
কেউ হতে চায় ব্যবসায়ী কেউ বা ব্যারিস্টার,
কেউ চায় বেচতে রূপোয় রূপের বাহার চুলের ফ্যাশান।

আমি ভবঘুরেই হব, এটাই আমার অ্যাম্বিশন।

ঠকানোই মূল মন্ত্র, আজকের সব পেশাতে,
পিছপা নয় বিধাতাও, তেলেতে জল মেশাতে।
ডাক্তার ভুলছে শপথ, ঘুশ খায় ইঞ্জিনিয়ার,
আইনের ব্যবচ্ছেদে, ডাক্তার সাজে মোক্তার।

যদি চাও সফলতা, মেনে নাও এই সিস্টেম,
ফেলে দাও শ্রোতের মুখে, আদর্শ বিবেক ও প্রেম।
এ সমাজ মানবে তোমায়, গাইবে তোমারই জয়গান।

আমি কোনে বাউল হব, এটাই আমার অ্যাম্বিশন।

বড় যদি চাইবে হতে, সেখানেও লোক ঠকানো।
সতভাবে বাঁচো বাঁচাও, একথা লোক ঠকানো।
সতভাবে যাবে বাঁচা, বড় হওয়া যাবে নাকো।
শুধু কথা না শুনে, বড়দের দেখেই শেখ।
এ সবই থাক তোমাদের, আমি বড় চাই না হতে,
ধুলো মাখা পথই আমার, তুমি চোড়ো জয়োরথে।
শত লাঞ্ছণা দিও, কোরো আমায় অসম্মান।

তবু আমি বোকাই হব, এটাই আমার অ্যাম্বিশন।

কেউ হতে চায় ডাক্তার, কেউ বা ইঞ্জিনিয়ার,
কেউ হতে চায় ব্যবসায়ী, কেউ বা ব্যারিস্টার,
কেউ চায় বেচতে রূপোয়, রূপের বাহার চুলের ফ্যাশান।

আমি ভবঘুরেই হব, এটাই আমার অ্যাম্বিশন।
আমি কোনে বাউল হব, এটাই আমার অ্যাম্বিশন।
তবু আমি বোকাই হব, এটাই আমার অ্যাম্বিশন।

দীর্ঘ বিরতি… অতঃপর পুনরায় স্কুলে গমন…বন্ধু…

Standard

বন্ধুত্বস্কুল সেই প্রি-টেস্ট এর পরে বন্ধ হয়েছে এরপর আর খোলার যেন কোন নাম গন্ধই নেই। যদিও বন্ধটা খুব দীর্ঘ নয়, তবুও ঘরে বসে বসে দম বন্ধ হয়ে আসে। স্কুলে যাবো, বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিব, কিছু ফাউ প্যাচাল পারবো এইতো মজা। আর আছেই বা ক’টা দিন স্কুলে? হয়তো একমাস, দেড়মাস এরপর আর দেখা হবে না স্কুলের ক্লাসগুলোতে কোন বন্ধুর সাথে। মেট্রিকের পর হয়তো যে যার মত ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়বে… হয়তো কারো সাথে আর দেখাই হবে না কখনো… 😳

ব্যপারটা ভাবলেই গাঁ শিউরে ওঠে যে এতোদিনের প্রিয় বন্ধুদের সাথে আর কখনো ক্ল্যাস করতে পারবো না। যানি আমার কথাগুলো ছেলেমানুষি মনে হচ্ছে সকলের কাছে, কিন্তু মনের অবস্থা আসলেই অন্যরকম। খুবই খারাপ লাগে এগুলো ভাবলে। মিস করবো বন্ধুদের অনেক। Continue reading